ধর্ম-দর্শন

পবিত্র কা’বার কালো পাথরের প্রহরী বাহিনী

Kabaনিজাম উদ্দীন সালেহ: প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ মুসলমান পবিত্র হজ্ব ও ওমরাহ পালনের জন্য মক্কায় গমন করেন। হজ্ব পালনকারীরা আশা করেন, ভিড়ের মধ্যে দিয়ে গিয়ে হজরে আসওয়াদ বা কালো পাথরকে চুম্বনে সক্ষম হবেন।
ফেরেশতা জিবরাইল (আঃ) এই বিখ্যাত কালো পাথরটি দিয়েছিলেন নবী হযরত ইব্রাহীম (আঃ) কে। এর সামনে একজন প্রহরী দাঁড়িয়ে থাকেন পাথরটি পর্যবেক্ষণ এবং আগ্রহী লোকজনকে পাথরটি চুম্বনে সহায়তা করতে। নিরাপত্তা কর্মকর্তারা জানান, ২৪ জন প্রহরী এ কাজে নিয়োজিত আছেন। তারা শর্ত সম্বলিত একটি নির্দিষ্ট তালিকার ভিত্তিতে নির্বাচিত হন। দেখা যায়, তারা তাদের কাজের জন্য যোগ্য, দৈহিক দিক দিয়ে উপযুক্ত এবং তীব্র তাপমাত্রা সহ্য করতে সক্ষম কি-না।
গ্র্যান্ড মসজিদ বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সীর কর্মকর্তারা প্রত্যেক ওয়াক্তের নামাজের পর কা’বার জন্য বিশেষভাবে প্রস্তুত ডিটারজেন্ট, গোলাপজল, আউদ সুগন্ধী ও শুদ্ধকারক সামগ্রীর দ্বারা কা’বা পরিশুদ্ধ করেন। গ্র্যান্ড মসজিদও দিনে একবার স্প্রের মাধ্যমে পরিশুদ্ধ করা হয়।
অনেকের ধারণা, কালো পাথর একটি মাত্র পাথর। আসলে ৮টি ছোট্ট পাথর মিলিয়ে এই কালো পাথর গঠিত। এর বড়ো টুকরো একটি খেজুরের সমান আকারের। এগুলো একত্রে একটি মোল্ড বা ছাঁচের মধ্যে ধারণা করা।
হজরে আসওয়াদ বা কালো পাথর পবিত্র কাবা গৃহের একটি কোণে অবস্থিত এবং মাটি থেকে প্রায় দেড় মিটার উঁচুতে স্থাপিত। এটা খাঁটি রৌপ্যের কাঠামোয় পরিবেষ্ঠিত। কালো পাথর কাবার চারদিকে তাওয়াফ বা প্রদক্ষিণের শুরু ও সমাপ্তির তাৎপর্যবাহী। প্রত্যেকবার তাওয়াফ বা প্রদক্ষিণের সময় হজ্ব পালনকারীরা প্রায়ই হাত তুলে ইশারায় কিংবা  বাস্তবে এটা স্পর্শের চেষ্টা করেন।

এ সম্পর্কিত অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close