বিধিবদ্ধ নিয়মে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় সিলেটে

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সিলেট নগরীর বিভিন্ন মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে বৃষ্টি মুসল্লীদের যাতায়াত পথে অনেকটা বিঘ্ন সৃষ্টি করেছিল। সকাল সাড়ে আটটায় হযরত শাহজালাল(র) দরগাহ মাজার মসজিদ ও হাজী কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদে ২টি করে জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে মুসল্লিরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রেখেন নামাজ আদায় করা হয়। এছাড়াও নগরীর ১৭৫ টি ও পুরো জেলায় দুই হাজারের বেশি মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়েছে একাধিক জামাত। প্রতিটি মসজিদেই শান্তিপূর্ণ ও সামাজিক দূরত্ব মেনে নামাজ আদায়ে মুসল্লিরা ছিলেন আন্তরিক। নগরীর অধিকাংশ জায়গায় পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নামাজ আদায় করতে মুসল্লিদের সহযোগিতা করেছে।
হযরত শাহজালাল দরগাহ মাজার মসজিদে ঈদের নামাজের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৮টায়। এরপর দ্বিতীয় জামাত সাড়ে ৯টায় অনুষ্ঠিত হয়। জামাতের একটিতে ইমামতি করেন হাফিজ মাওলানা আসজাদ আহমদ ও দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করেন হাফিজ মাওলানা হুজায়ফা হুসাইন।
এদিকে, বন্দরবাজার এলাকার সিলেট কালেক্টরেট মসজিদে সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা ও ১০টায় ৪টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। নগরীর হাজী কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদের দু’টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ৮টায় একটি আর সাড়ে ৯টায় আরেকটি। একটিতে ইমামতি করেন মসজিদের ইমাম ও খতিব সাঈদ বিন নুরুজ্জমান আালমদানি এবং অপরটিতে ওই মসজিদের মোয়াজ্জিন। নগরীর বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় একটি। এতে ইমামতি করেন মসজিদের ইমাম ও খতিব মুফতি মাওলানা আবু হুরায়রা নোমান। নগরীর খাসদবীর জামেয়া মদীনাতুল উলুম দারুসসালাম মাদ্রাসা মসজিদে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দুটি জামাআত অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম জামাত সকাল ৮ টা এবং দ্বিতীয় জামাত সকাল সাড়ে ৮ টায়।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close