বিদেশি পর্যটকদের জন্য দরজা খুলে দিয়েছে সউদী আরব

সৌদি আরবে অনলাইনে ভ্রমণ ভিসা আবেদন গ্রহণ শুরু

বিশ্বের ৪৯টি দেশের নাগরিকরা অনলাইনে ভ্রমণ আবেদন করতে পারবেন

শুধুই বেড়ানোর জন্য সউদী আরবে যাবার কথা কি কখনো ভেবেছেন? আপনার পূর্ব-ধারণা যাই থাকুক, প্রচলিত ধারা ভেঙে প্রথমবারের মতো পর্যটকদের জন্য দুয়ার খুলে দিয়েছে সৌদি আরব। গতকাল শুক্রবার দেশটির সরকার জানায়, প্রথমবারের মতো বিশ্বের ৪৯টি দেশের নাগরিকদের ভ্রমণ ভিসা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। এতদিন সৌদি আরবে ভিসা দেয়া হতো প্রধানত হজযাত্রী, ব্যবসায়ী এবং বিদেশি শ্রমিকদের জন্য। বিগত বছরগুলোতে আন্তর্জাতিক বাজারে যেভাবে তেলের দাম পড়ে গেছে, তা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি তেল উৎপাদনকারী এই দেশটির শাসকদের বাধ্য করছে পরিবর্তনের গতি বাড়াতে। ফলে সৌদি আরবের আয় কমে গেছে অর্ধেক। নতুন অবস্থার সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে তাদের এখন অনেক কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে। ২০১৭ সালে নতুন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান সংস্কারের ঘোষণা দেন।

সৌদি আরবে ভ্রমণ ভিসা পাবে এমন দেশগুলো হলো- (ইউরোপ) সুইজারল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, লিচেন্সটাইন, লিথুনিয়া, মোনাকো, এ্যান্ডোরা, রাশিয়া, মাল্টা, মন্টেনিগ্রো, সান মারিও, ইউক্রেন, ইংল্যান্ড, পর্তুগাল, পোল্যান্ড, অস্ট্রিয়া, বেলজিয়াম, বুলগেরিয়া, রোমানিয়া, স্লোভাকিয়া, ক্রোয়েশিয়া, সাইপ্রাস, চেক প্রজাতন্ত্র, স্পেন, সুইডেন, ডেনমার্ক, এস্তোনিয়া, ফিনল্যান্ড, নরওয়ে, লুক্সেমবার্গ, ফ্রান্স, জার্মানি, গ্রিস, স্লোভেনিয়া, হল্যান্ড, হাঙ্গেরি, আইসল্যান্ড, ইতালি ও লাটভিয়া।
এশিয়ার সাতটি দেশ- ব্রুনাই, জাপান, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, কাজাকিস্তান ও চীন (হংকং, ম্যানাকো ও তাইয়ানসহ)। অন্য দেশগুলো হলো- মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড।

পর্যটন থেকে এখন সৌদি আরব আয়ের চেষ্টা করছে। যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ২০৩০ সালের মধ্যে সংস্কার ঘোষণা দিয়েছেন। সপ্তাহ দুয়েক আগেই ড্রোন হামলায় সৌদি আরবের বড় দুটি তেল স্থাপনা মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাদের তেল উৎপাদন নেমে আসে অর্ধেকে। বিশ্ববাজারেও বেড়ে যায় তেলের দাম। ধারণা করা হচ্ছে তেল বাণিজ্যের ওপর থেকে নির্ভরশীলতা কমাতেই এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

পর্যটন প্রধান আহমেদ আল খতিব বলেন, আন্তর্জাতিক পর্যটকদের জন্য সৌদি আরবকে উন্মুক্ত করা আমাদের দেশের জন্য ঐতিহাসিক মুহূর্ত। পর্যটকরা আমাদের সম্পদ দেখে চমকে যাবেন। ইউনেস্কো স্বীকৃত পাঁচটি হেরিটেজ রয়েছে আমাদের।’ আজ শনিবার থেকে বিশ্বের ৪৯টি দেশের নাগরিকদের জন্য অনলাইনে ভ্রমণ আবেদন গ্রহণ শুরু হবে। খতিব বলেন, নারী পর্যটকদের জন্যও তারা পোশাকের ওপর বিধিনিষেধ শিথিল করবো। তবে তাদের অবশ্যই ‘মার্জিত পোশাক’ পড়তে হবে।

সৌদি আরবে রক্ষণশীল ধর্মীয় নেতাদের নিয়ন্ত্রণ এতটাই কঠোর যে সেখান পরিবর্তনের গতি খুবই ধীর। কিন্তু বিগত বছরগুলোতে আন্তর্জাতিক বাজারে যেভাবে তেলের দাম পড়ে গেছে, তা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি তেল উৎপাদনকারী এই দেশটির শাসকদের বাধ্য করছে পরিবর্তনের গতি বাড়াতে। অনলাইনে ভ্রমণ আবেদন করতে ও তথ্যের জন্য ভিজিট করুন https://visa.visitsaudi.com/

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close