প্রেমের টানে খুলনায় জার্মান নারী

প্রেমের টানে স্বামী-সংসার ফেলে জার্মান নাগরিক অ্যাসটিট ক্রিস্টিয়াল কাসুমী সিউর এখন খুলনায়। মহানগরীর খানজাহান আলী থানার যোগিপোলের যুবক আসাদ মোড়লের প্রেমে পড়ে খুলনায় এসেছেন তিনি। বাংলাদেশে আসার আগে ক্রিস্টিয়াল তার জার্মান স্বামীকে ডির্ভোস দিয়েছেন। খুলনায় এসেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে আসাদ মোড়লকে বিয়ে করেছেন। আসাদের সঙ্গে জার্মান নাগরিকের বিয়ের খবরে এলাকাবাসীর মধ্যে কৌতূহল ছড়িয়ে পড়েছে।
জানা গেছে, মহানগরীর যোগিপোল ৭নং ওয়ার্ডের ইব্রাহিম মোড়লের ছেলে এমডি আসাদ মোড়লের (৪০) সঙ্গে দুই বছর আগে ফেসবুকে পরিচয় হয় জার্মানির ক্রিস্টিয়ালের (৪৩)। পেশায় তিনি একজন সার্ভেয়ার। বন্ধুত্ব থেকে একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ক্রিস্টিয়াল এই সম্পর্ককে বাস্তবে রূপ দিতে জার্মানির স্বামীকে ডির্ভোস দিয়ে গত ১০ জুন ঢাকায় আসেন। ১১ জুন তিনি আসাদের খোঁজে খুলনায় আসেন এবং একটি হোটেলে ওঠেন। ওই হোটেলেই দুজনের প্রথমবারের মতো সরাসরি দেখা হয়। ১২ জুন ক্রিস্টিয়াল খুলনা নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে খ্রিস্টান ধর্ম ত্যাগ করেন এবং ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। ১৩ জুন কোর্টের মাধ্যমে দু’জনের বিয়ে হয়।
আসাদ মোড়ল ও তার জার্মান স্ত্রী ক্রিস্টিয়াল বলেন, ‘আসাদের সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক বাস্তবে রূপ দিতেই আমি বাংলাদেশে আসি। সরাসরি তাকে দেখে বুঝে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করি এবং বিয়ে করেছি। এখন আমরা সুখী।’
আসাদ বলেন, ‘তার জীবনসঙ্গী হতে পেরে আমিও খুবই খুশি।’ ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে আসাদ জানান, ক্রিস্টিয়াল এ মাসেই জার্মানি ফিরে যাবেন। তিনি আসাদকেও জার্মানি নেওয়ার চেষ্টা করবেন। আসাদের বাবা ইব্রাহিম মোড়ল বলেন, ‘ছেলে যাকে নিয়ে সুখী হবে তাতে আমাদের কোনও আপত্তি নেই। তবে কখনও ভাবিনি সে এক বিদেশিকে বিয়ে করবে।’

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close