শিরোনাম :

লন্ডন, আজ মঙ্গলবার | ২৪শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং | ৮ই শাবান, ১৪৩৯ হিজরী | ১১ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | গ্রীষ্মকাল | রাত ১১:৫৬

Home » সাহিত্য » ‘খণ্ডিত প্রহর’ উপন্যাসের প্রকাশনা উৎসব

‘খণ্ডিত প্রহর’ উপন্যাসের প্রকাশনা উৎসব

kalamফেঞ্চুগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শিক্ষাবিদ কবি কালাম আজাদ উপন্যাস ও উপন্যাসের লেখকের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেছেন, পারিবারিক ও সামাজিক মূল্যবোধের সংরক্ষণেই একটি সুন্দর সমাজ গড়ে ওঠে। মূল্যবোধের অবক্ষয়েই সমাজ কাঠামো ধ্বংস হয়ে যায়। কবি অধ্যাপক শাহিমা খানম হেপী তাঁর রচিত ‘খন্ডিত প্রহর’ উপন্যাসে অত্যন্ত নান্দনিকতায় সমাজের বাস্তব চিত্র তুলে ধরেছেন। জীবনশিল্পীর মন ও মনন নিয়ে রচিত তাঁর সৃষ্টিকর্ম একটি সুন্দর সমাজ গঠনে ভূমিকা রাখবে। নতুন প্রজন্ম মূল্যবোধের সমন্বয়ে গড়ে ওঠে সমাজ পরিবর্তনে উদ্বুদ্ধ হবে। এই উপন্যাস নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার।
পাপড়ি প্রকাশ, সিলেট-এর উদ্যোগে অধ্যাপক শাহিমা খানম হেপীর তৃতীয় গ্রন্থ ‘খন্ডিত প্রহর’-এর প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যক্ষ কালাম আজাদ  উপরোক্ত কথা বলেন।
দৈনিক জালালাবাদ’র সহকারী সম্পাদক কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ’র সভাপতিত্বে সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের বইমেলা মঞ্চে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ সভাপতি গল্পকার সেলিম আউয়াল, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেমুসাসের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি কবি মুহিত চৌধুরী, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ-লেখক সুরাইয়া মাসউদ এবং অনুভূতি ব্যক্ত করেন গ্রন্থের লেখক কবি শাহিমা খানম হেপী।
পাপড়ি প্রকাশ, সিলেট-এর স্বত্ত্বাধিকারী ছড়াকার কামরুল আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ সভাপতি মুহম্মদ বশিরুদ্দিন, সহ সাধারণ সম্পাদক  কবি সৈয়দ মবনু, অধ্যাপক কবি বাছিত ইবনে হাবীব, সিলেট সংস্কৃতি কেন্দ্রের পরিচালক প্রাবন্ধিক জাহেদুর রহমান চৌধুরী, এডভোকেট জিয়াউর রহমান শাহিন, শাবিপ্রবির ডেপুটি রেজিস্ট্রার সংগঠক আহমদ মাহবুব ফেরদৌস, কবি এম. আশরাফ আলী, কবি নাজমুল ইসলাম মকবুল, মদন মোহন কলেজ, সিলেট-এর সহকারী অধ্যাপক জুন্নুরায়েন চৌধুরী, কবি এম. শহীদুজ্জামান চৌধুরী। অনুষ্ঠানের শেষে মোনাজাত পরিচালনা করেন বিশিষ্ট ভাষাসৈনিক, শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ মাসউদ খান।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ক্বারী ইমরান আনসারী। অনুষ্ঠানে দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করেন কণ্ঠশিল্পী তাওহীদ সুফিয়ান।
প্রধান আলোচকের বক্তব্যে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ সভাপতি গল্পকার সেলিম আউয়াল বলেন, ‘খন্ডিত প্রহর’ উপন্যাস সমাজ পরিবর্তনের জন্য নতুন প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা দেবে। এই গ্রন্থে লেখক অত্যন্ত সুন্দরভাবে সমাজের নানা অন্যায়-অনাচার এবং সুখ-দুঃখ তুলে ধরেছেন। ধর্মীয় মূল্যবোধ সত্যিকারভাবে অর্জনের মাধ্যমে আলোকবর্তিকা হিসেবে কাজ করবে তাঁর লেখা।
অনুভূতি ব্যক্ত করে অধ্যাপক কবি শাহিমা খানম হেপী বলেন, নিজেকে পরিপূর্ণভাবে সম্মান জানানো মাধ্যমে নিজস্ব সত্ত্বাকে অনুধাবণ করা যায়। একটি সুন্দর সমাজ গঠনে মূল্যবোধের অপরিহার্যতা ভেবে উপন্যাসটি রচনা করেছি। উপন্যাসটি পড়ে আলোকিত সমাজ গঠনে উদ্বুদ্ধ হলেই আমার লেখার সার্থক হবে।
সভাপতির বক্তব্যে কবি নিজাম উদ্দিন সালেহ বলেন, কবি শাহিমা খানম হেপীর উপন্যাসটি একটি সংস্কারধর্মী রচনা। তাঁর লেখায় সমাজচিত্র ছবির মত ফুটে উঠেছে। মূল্যবোধের সমন্বয়ে একটি সুস্থ সমাজ গঠনে তাঁর লেখা তরুণ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন