ইংল্যান্ডে টিপু সুলতানের বন্দুক ও তলোয়ারের সন্ধান

মাহবুব আলী খানশূর: ব্রিটেনের বার্কশায়ার কাউন্টির স্থানীয় এক বাসিন্দার বাড়ির চিলেকোঠায় পাওয়া গেছে উপমহাদেশের বিখ্যাত বীর টিপু সুলতানের ব্যবহৃত বন্দুক ও তলোয়ার। মহীশূরের চতুর্থ যুদ্ধে (১৭৯৮-৯৯ সালে ) ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এসব ব্যবহার করেছিলেন টিপু সুলতান। সেই যুদ্ধে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির হয়ে লড়াই করেছিলেন ইংল্যান্ডের মেজর টমাস হার্ট। সম্প্রতি টমাস হার্টের উত্তরসূরিরা চিলেকোঠার ঘর পরিষ্কার করাতে গিয়ে ধুলো ভর্তি খবর কাগজের মধ্যে কিছু একটা দেখতে পান। সেগুলো নামাতেই তারা দেখতে পান বাঘ ছাপওয়ালা বন্দুক ও স্বর্ণ খচিত তলোয়ার। চিলেকোঠায় বন্দুক ও তলোয়ার দেখে হকচকিয়ে যান ওই ব্রিটিশ পরিবার।

জানা যায়, বাঘ ছাপওয়ালা বন্দুকটি টিপু সুলতানের। আর স্বর্ণ খচিত তলোয়ারটি টিপু সুলতানের বাবা হায়দার আলীর। চতুর্থ মহীশূর যুদ্ধে পরাজয়ের পর টমাস হার্ট ওই জিনিসগুলো প্রাসাদ থেকে নিয়ে চলে গিয়েছিলেন ইংল্যান্ডে। পরে সেগুলো রেখে দিয়েছিলেন নিজের বাড়িতে। ২২০ বছর পর সেগুলো খুঁজে পেলেন টমাস হার্টের উত্তরসূরিরা।

আঠারো শতকে ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিরুদ্ধে যুদ্ধে ভারতবর্ষের অন্যতম বীর ছিলেন মহীশূরের টিপু সুলতান। ভারতের অনেক এলাকা কোম্পানির অধীনে থাকলেও মহীশূর ছিল স্বাধীন। মহীশূর দখল করতে ইংরেজরা চারবার আক্রমণ করে। প্রথমটি হায়দারের সময়ে এবং বাকিগুলো টিপুর সময়। ইংরেজ – মহীশূর দ্বিতীয় যুদ্ধে বিজয়ী হয়েছিলেন টিপু। পরের যুদ্ধে সন্ধি করতে বাধ্য হন তিনি। ডিউক অব ওয়েলিংটনের বিরুদ্ধে ইংরেজ-মহীশূর চতুর্থ যুদ্ধে নিহত হন টিপু।

টমাস হার্টের উত্তরসূরিদের সাথে কথা বলে জানা যায়, এই মাসের শেষের দিকে নিলামে উঠবে টিপু সুলতানের ওই বন্দুক ও তলোয়ার। আর নিলামের জন্য অ্যাটর্নি ক্রিব লিমিটেড নামের এক নিলাম সংস্থার সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। সংস্থাটির কর্ণধার বলেছেন, “এটি একটি অভাবনীয় আবিষ্কার। ২২০ বছর ধরে এই প্রত্নতাত্ত্বিক সামগ্রীগুলো অবহেলায় পড়েছিল।”

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close