সবচেয়ে বেশি দামে জার্সির স্বত্ব বিক্রির রেকর্ড

৮০ মিলিয়ন পাউন্ডে জার্সির স্বত্ব বিক্রি লিভারপুলের

সর্বশেষ চ্যাম্পিয়নস লিগের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল। লিগে গেল মৌসুমে দুইয়ে থেকে শেষ করেছে। তবে মৌসুমের শেষ পর্যন্ত শিরোপার লড়াই করেছে। চলতি মৌসুমে আবার লিগ টেবিলে একক আধিপত্য অল রেডসদের। এতেই বিজ্ঞাপন স্বত্বের বাজারে তাদের দাম বেড়ে গেছে। ক্রীড়া সামগ্রী উৎপাদন প্রতিষ্ঠান নাইকির সঙ্গে জার্সির স্বত্ব বিক্রির চুক্তি করেছে বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্লাবটি।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দামে জার্সির স্বত্ব বিক্রির রেকর্ড গড়েছে তারা। আর ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লিগের মধ্যে তৃতীয় সর্বোচ্চ দামে বিক্রি হয়েছে তাদের জার্সির স্বত্ব। প্রতি মৌসুমে লিভারপুলকে জার্সি বিক্রি বাবদ ৮০ মিলিয়ন পাউন্ড দেবে ক্রীড়া সামগ্রি উৎপাদনের জায়ান্ট এই প্রতিষ্ঠানটি। এর আগে অল রেডসদের জার্সি স্বত্ব নেয় আমেরিকান ক্রীড়া সামগ্রি উৎপাদন প্রতিষ্ঠান নিউ ব্যালান্স।

লিভারপুলের সঙ্গে কয়েক মৌসুমের চুক্তি করেছে তারা। চুক্তি অনুযায়ী লিভারপুলের মূল দল, নারী দল, একাডেমি দল, কোচিং স্টাফ এবং লিভারপুল এফসি ফাউন্ডেশনের জার্সি তৈরি করতে পারবে শুধু নাইকি। ওই জার্সি বাজারজাত করার স্বত্ব কেবল তাদের। তাছাড়া লিভারপুলের জার্সিতে থাকবে নাইকির লোগো। আর এর জন্য লিভারপুলকে তারা দেবে ওই অর্থ।

এর আগে ইংলিশ ক্লাবের মধ্যে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড জার্সি বিক্রি থেকে সবচেয়ে বেশি আয় করতো। প্রতি মৌসুমে অ্যাডিডাস তাদের দেয় ৭৫ মিলিয়ন পাউন্ড। পুমার সঙ্গে ইংলিশ লিগের আরেক দল ম্যানসিটির চুক্তি আছে। তারা পায় ৬৫ মিলিয়ন ইউরো। এরপরে অ্যাডিডাস ও নাইকি থেকে যথাক্রমে আর্সেনাল ও চেলসি ৬০ মিলিয়ন করে অর্থ পায়।

জার্সি বিক্রির স্বত্ব থেকে সবচেয়ে বেশি অর্থ আয় করে বার্সেলোনা। তাদের সঙ্গে নাইকির প্রতি মৌসুমে ১০০ মিলিয়ন পাউন্ডের চুক্তি আছে। ২০১৮ থেকে ২০২৮ সাল পর্যন্ত বার্সার সঙ্গে চুক্তি করেছে নাইকি। এই সময়ে এক বিলিয়ন পাউন্ড বার্সাকে দেবে প্রতিষ্ঠানটি। রিয়াল মাদ্রিদকে অ্যাডিডাস প্রতি মৌসুমে তাদের জার্সি বিক্রি বাবদ দেয় ৯৮ মিলিয়ন পাউন্ড। ২০১৫ সালে রিয়াল অ্যাডিডাসের সঙ্গে চুক্তি করে। মেয়াদ শেষ হবে ২০২৫ সালে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close