শিরোনাম :

লন্ডন, আজ রবিবার | ২২শে জুলাই, ২০১৮ ইং | ৯ই জিলক্বদ, ১৪৩৯ হিজরী | ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বর্ষাকাল | বিকাল ৫:৩৭

Home » অর্থবাণিজ্য » ওপেককে তেলের দাম কমাতে বললেন ট্রাম্প

ওপেককে তেলের দাম কমাতে বললেন ট্রাম্প

opecমার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তেল উৎপাদনকারীদের সংগঠন অর্গানাইজেশন অব পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজকে (ওপেক) তেলের দাম কমাতে বলেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প ওপেককে এখনই তেলের দাম কমানোর কথা বলেন।
ট্রাম্প লিখেছেন, একচেটিয়া ওপেকের মনে রাখা উচিত যে গ্যাসের দাম অনেক বেশি এবং তারা কোনও সহযোগিতা করছে না। যদি কিছু তারা করে থাকে তা হচ্ছে মূল্য বাড়াচ্ছে। অথচ যুক্তরাষ্ট্র ওপেকের সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে প্রতিরক্ষা দিচ্ছে বিনামূল্যে। লেনদেন দ্বিপাক্ষিক হওয়া উচিত। এখনই তেলের দাম কমাও।
এর আগে শনিবার ট্রাম্প জানান, তিনি সৌদি আরবের বাদশাহ সালমানের সঙ্গে কথা বলেছেন। তাকে বলেছেন ইরান ও ভেনেজুয়েলার কারণে সৌদি আরবের তেলের উৎপাদন দিনে আরও ২০ লাখ ব্যারেল বাড়ানো প্রয়োজন। ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, সৌদি বাদশাহ তার সঙ্গে একমত হয়েছেন।
তবে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ উভয় রাষ্ট্রনেতার ফোনালাপের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানায়, তেলের বাজারের স্থিতিশীলতা রক্ষা পদক্ষেপ প্রয়োজনের বিষয়ে তারা কথা বলেছেন। এসপিএ তেলের উৎপাদন বাড়ানোর বিষয়ে সম্মতির কথা উল্লেখ করেনি। পরে হোয়াইট হাউসও ট্রাম্পের দাবি থেকে কিছুটা সরে আসে। এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সৌদি বাদশাহ আশ্বস্ত করেছেন প্রতিদিন অতিরিক্ত ২০ লাখ ব্যারেল তেল উৎপাদনের ক্ষমতা রয়েছে রিয়াদের। তবে তা প্রয়োজনে এবং ওপেক ও ওপেক বহির্ভূত মিত্রদের সঙ্গে আলোচনা করেই কাজে লাগানো হবে।
২০১৬ সালে ওপেক সদস্য ও বৃহত্তম তেল উৎপাদকরা প্রতিদিন তেলের উৎপাদন ১৮ লাখ ব্যারেল কমিয়ে আনতে সমঝোতায় পৌঁছে। গত সপ্তাহে ওপেক দেশগুলো প্রতিদিন উৎপাদন ১০ লাখ ব্যারেল বাড়াতে সম্মত হয়।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন