কমিউনিটি

আধুনিক দাসত্বের বিরুদ্ধে চার্টারে স্বাক্ষর করলো টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল

Towerটাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল আধুনিক দাসত্বের বিরুদ্ধে চার্টারে স্বাক্ষর করেছে। কোঅপারেটিভ পার্টির প্রস্তাবিত এই চার্টারে এনিয়ে মোট ১২টি কাউন্সিল স্বাক্ষর অথবা মোশন পাশ করলো। এই চার্টারে স্বাক্ষরের ফলে কাউন্সিল স্বতপ্রণোদিত হয়ে তার অন্যান্য সাপ্লাই চেইনগুলোকে আধুনিক দাসত্বের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে বাধ্য করতে পারবে।
উল্লেখ্য যে, আধুনিক দাসত্ব বিভিন্ন ফর্মে সমাজে বিদ্যমান। কখনো কখনো তা সম্মিলিতভাবেও সংগঠিত হয়। এর মধ্যে রয়েছে যৌন কর্মে বাধ্যকরা, ডমেস্টিক বশ্যতা, ফোর্সড লেবার, ক্রিমিনাল কাজে বাধ্য করা ইত্যাদি। এর বাইরে শরীরের অর্গান রিমোভাল, জোরপূর্বক ভিক্ষাবৃত্তি, জোরপূর্বক বেনিফিট ফ্রড, জোরপূর্বক বিবাহ এবং অবৈধ এডপশনও সমাজে সংগঠিত হয়।
সম্মিলিতভাবে ব্রিটেনের স্থানীয় সরকারগুলো বিভিন্ন সাপ্লাই চেইন থেকে বছরে ৪০ বিলিয়ন পাউন্ডের সার্ভিস এবং বিভিন্ন মালামাল ক্রয় করে। মডার্ন দাসত্ব এ্যক্ট ২০১৫ অনুযায়ী কাউন্সিলকে বিভিন্ন আইনী শর্ত পালন করতে হয় কিন্তু এই চার্টার এই আইনের বাইরে গিয়ে কাউন্সিলের এখতিয়ারকে বিস্তৃত করবে। কাউন্সিলের বিভিন্ন সাপ্লাই চেইন যাতে আধুনিক দাসত্বের সাথে জড়িত না হতে পারে এজন্য কাউন্সিল তাদেরকে বাধ্য করতে পারবে।
উল্লেখ্য যে, ব্রিটেনে প্রতিবছর ১৩ হাজার মানুষ আধুনিক দাসত্বের শিকার হয়।
টাওয়ার হ্যামলেটসের নির্বাহী মেয়র জন বিগস এব্যাপারে তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আধুনিক দাসত্ব খুবই উদ্বেগের একটি বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এজন্য কোঅপারেটিভ পার্টির সাথে আমরা মিলে কাজ করছি যাতে সমাজ থেকে একে নির্মূল করা যায়। যারা এসব অপকর্মের সাথে জড়িত তাদের জন্য এটি একটি শক্তিশালী সতর্কবার্তা।
ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলার র‌্যাচেল ব্ল্যাক গত ৯ জুন মেয়রের পক্ষে এই চার্টারে স্বাক্ষরের পর বলেন, আধুনিক দাসত্ব বন্ধে এটি একটি সতর্কবার্তা।  কোঅপারেটিভ পার্টির জেনারেল সেক্রেটারী ক্লেয়ার ম্যাকার্থি টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলকে এই চার্টারে স্বাক্ষরের জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এই চাটাঁর তাদের সাপ্লাই চেইনকে এধরনের অপরাধ থেকে দূরে রাখতে বাধ্য করবে অথবা লুকানোর রাস্তা বন্ধ করবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close