সিলেট

সিলেটে জিপিএ-৫ বেড়েছে, কমেছে পাশের হার

Examসিলেট শিক্ষা বোর্ডের অধীনে মাধ্যমিক বিদ্যালয় সনদ (এসএসসি) পরীক্ষার ফলাফলে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সংখ্যা বেড়েছে। তবে গত পাঁচবছরের মধ্যে এবার সর্বনিম্ন পাশের হার এসেছে এ বোর্ডে।
আজ রোববার দুপুরে সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. কবির আহমদ আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করেন। এবার সিলেট বোর্ডে পাশের হার ৭০ দশমিক ৪২ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ১৯১জন শিক্ষার্থী।
চলতি বছর ১ লাখ ৯ হাজার ১৮০ শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। তবে, ১ লাখ ৮ হাজার ৯২৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেন। এদের মধ্যে পাশ করেছে ৭৬ হাজার ৭১০ জন। মোট পাশ করা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছেলে ৩৪ হাজার ১৪৩জন ও মেয়ে শিক্ষার্থী ৪২ হাজার ৫৬৭জন।
এদিকে বিজ্ঞান বিভাগে পাসের হার ৯২ দশমিক ৫৭ শতাংশ, মানবিক বিভাগে ৬২ দশমিক ৩৫ শতাংশ ও বাণিজ্য বিভাগে ৮১ দশমিক ৬৫ শতাংশ।
এবছর সিলেট জেলায় পাশের হার ৭৩ দশমিক ৮০, হবিগঞ্জে ৭০ দশমিক ৩৪, মৌলভীবাজারে ৬৬ দশমিক ৯৯ ও সুনামগঞ্জে ৬৮ দশমিক ৫৩ শতাংশ। ৮শ’ ৯২ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২৩টি প্রতিষ্ঠানের শতভাগ শিক্ষার্থী পাশ করেছে। কোন প্রতিষ্ঠানে শতভাগ অকৃতকার্য হওয়ার রেকর্ড নেই।
ফলাফলের পরিসংখানে দেখা যায়, গত ৫ বছরের মধ্যে এবারের পরীক্ষা সবচেয়ে পাশের হার কমেছে সিলেটে। এ বোর্ডে ২০১৪ সালে পাশের হার ছিল ৮৯ দশমিক ২৩, ২০১৫ সালে ৮১ দশমিক ৮২, ২০১৬ সালে পাসের হার ছিল ৮৪ দশমিক ৭৭, ২০১৭ সালে ৮০ দশমিক ২৬।
তবে,এ বছর জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সংখ্যা বেড়েছে। ২০১৫ সালে ২৪৫২ জন, ২০১৬ সালে ২২৬৬ জন এবং ২০১৬ সালে ২৬৬৩ জন জিপিএ ৫ পায়। ২০১৭ সালে ২ হাজার ৬৬৩ জন এবং এ বছর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ১৯১ জন।
সিলেট শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. কবির আহমদ জানান,পাশের কমলেও শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি পেয়েছে। ইংরেজী ও গণিতে অকৃতকার্যের সংখ্যা বেশি হওয়ায় এবার পাশের হার কমেছে। প্রায় প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তিবান্ধব পাঠদান চালু হওয়ায় এ কার্যক্রম জেলা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসগুলো নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করছে। এটি গুণগত শিক্ষা নিশ্চিত করছে। জিপিএ-৫ বাড়ার পেছনে এটি অন্যতম কারণ বলেও জানান তিনি। -বাসস

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close