কমিউনিটি

ভোট জালিয়াতি রোধে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের ব্যাপক পরিকল্পনা গ্রহণ

unitedআগামী ৩রা মে অনুষ্ঠিতব্য স্থানীয় কাউন্সিলর ও মেয়রাল  নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু ও স্বচ্চছ করতে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল বিস্তারিত পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে, যাকে স্বাগত জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রী ক্লোয়ি স্মিথ এমপি।
কাউন্সিলের নেয়া নতুন পদক্ষেপ ও পরিকল্পনা সম্পর্কে জনসচেতনতা বাড়াতে ১৯ মার্চ টাউন হলে অনুষ্ঠিত ক্রাইমস্টোপার্স এবং ইলেক্টোরাল কমিশনের প্রতিনিধিদের নিয়ে আয়োজিত পার্টনারশীপ ইভেন্টে যোগ দেন মিনিস্টার ফর দ্যা কন্সটিটিউশন, ক্লোয়ি স্মিথ এমপি।
ভোট জালিয়াতি সম্পর্কে ভোটারদের সচেতন করতে এবং মে মাসের নির্বাচনে তারা যাতে পরিপূর্ণ নিরাপত্তার সাথে নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন, তা নিশ্চিত করতে “আপনার ভোট শুধুমাত্রই আপনার” শির্ষক এক ক্যাম্পেইন বা প্রচারাভিযান শুরু করা হয়েছে।
৩ মে টাওয়ার হ্যামলেটসে দু’টি নির্বাচন হবে, এর একটি হচ্ছে স্থানীয় কাউন্সিলর নির্বাচন এবং অপরটি হচ্ছে মেয়রাল নির্বাচন।
কাউন্সিলের চীফ এক্সিকিউটিভ এবং আসন্ন নির্বাচনের রিটার্নীং অফিসার উইল টাকলি বারায় মন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, টাওয়ার হ্যামলেটসে আমরা বেশ অনেক দিন ধরেই নির্বাচনী প্রস্তুতি নিচ্চি। ভোট জালিয়াতি রোধে আমাদের পদক্ষেপসমূহ লন্ডনের অন্যান্য এলাকার চেয়ে অধিকতর বলিষ্ঠ ও কঠিন এবং কিছু কিছু পদক্ষেপ দেশের মধ্যেও বলিষ্ঠ।
চীফ এক্সিকিউটিভ আরো বলেন, আমাদের উদ্যোগগুলোর একটি হচ্ছে পোলিং স্টেশনগুলোর প্রবেশ-নির্গমন এলাকায় এক্সক্লুজন জোন ঘোষনা করা, অর্থৎ নির্দিষ্ট এলাকায় একাধিক ব্যক্তি জড়ো হতে পারবে না। এই উদ্যোগটি কার্যকর পদক্ষেপ হিসেবে জাতীয়ভাবে অনুস্মরণ করার সুপারিশ করা হয়েছে।
উইল টাকলি বলেন, আমরা জানি যে মে মাসে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনকে সর্বাতামক অবাধ, সুষ্ঠু, স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ করতে সংশ্লিষ্ট সকলকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার কোন বিকল্প নাই। আমরা তাই করে যাচ্চি। আমরা পুলিশ এবং ইলেক্টোরাল কমিশনের সাথে অত্যন্ত ঘনিষ্টভাবে কাজ করছি। স্থানীয় বাসিন্দাদের সাথেও আমরা কাজ করতে চাই। আমরা যে পদক্ষেপগুলো নিয়েছি, তা তাদের জানাতে চাই এবং ভোটার তালিকায় নাম নিবন্ধন ও নিজের ভোট নিজে নিরাপদে প্রদানে তাদের উদ্বুদ্ধ করতে চাই।
টাউন হলে অনুষ্ঠিত পার্টনারীপ ইভেন্টে বক্তৃতাকালে মিনিস্টার ফর কন্সটিটিউশন ক্লোয়ি স্মিথ এমপি বলেন, ভষ্যিতের জন্য সুসংহত ও শক্তিশালী নির্বাচনী পদ্ধতি নিশ্চিত করতে সরকার বদ্ধপরিকর। এই কাজের অংশ হিসেবে, মে মাসের নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু ও জালিয়াতী মুক্ত করতে কেবিনেট অফিস ক্রাইমস্টোপার্স এবং ইলেক্টোরাল কমিশনের সাথে নতুন পার্টনারশীপ গড়ে তুলেছে।
মন্ত্রী আরো বলেন, ভোটাররা যাতে নির্বাচনী জালিয়াত চিহ্নিত করতে পারেন এবং তা রিপোর্ট করতে উদ্বুদ্ধ হন, সেজন্য তাদের ক্ষমতায়ন করতে “আপনার ভোট শুধুমাত্র আমারই” ক্যাম্পেইন বা প্রচারাভিযান কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। আসন্ন স্থানীয় নির্বাচনে যদি ভোট জালিয়াতির কোন ঘটনা সম্পর্কে সন্দেহ হয়, তাহলে ক্রাইমস্টোপার্স এর হেল্পলাইনে যোগাযোগ করতে আমরা জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধ করছি। অভিযোগ পাওয়ার পর ক্রাইমস্টোপার্স পুলিশের সাথে মিলে তা তদন্ত করবে।
এই পার্টনারশীপ ইভেন্ট আয়োজন করায় টাওয়ার হ্যামলেটসের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, নির্বাচনী জালিয়াতির বিষয়টি গুরুত্বের সাথে তুলে ধরতে হবে। এটা শিকারহীন কোন অপরাধ নয়। ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার মাধ্যমেই সম্ভব এই অপারধকে সমূলে উৎপাটন করা। নতুন প্রচারাভিযান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও পোস্টারের মাধ্যমে দেশব্যাপি চালানো হবে। টাওয়ার হ্যামলেটসের নিজস্ব সামাজিক মাধ্যমেও এই প্রচরাভিযান চলবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close